Header Border

ঢাকা, শনিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল) ২৮.৯৬°সে
সংবাদ শিরোনামঃ
দক্ষিণখান থানার ফায়দাবাদ গন কবরস্থান এলাকার ঘটনা নিয়ে একটি অডিও ক্লিপ ফাঁস উত্তরায় কাউন্সিলর ও তার সচিবের সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে এশিয়ান টিভির সাংবাদিকের উপর হামলা । PRINT Q MACHINERY কেন আ.লীগ ছাড়লেন, জানালেন কাদের মির্জা ভ্যাকসিন দেওয়ায় বাংলাদেশ অনেক উন্নত দেশের তুলনায় এগিয়ে টঙ্গীতে আউচপাড়ায় ফারজানা নামে এক তরুনীর ধর্ষন অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চালু বুধবার থেকে ইতালিতে কঠোর লকডাউনের পর ২৬ এপ্রিল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে আরও একধাপ পেছাল বাংলাদেশ বাংলাদেশে করোনা টিকা উৎপাদনের প্রস্তাব রাশিয়ার বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষ উৎযাপন করল দক্ষিণখান ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ (উত্তর) মাইনুল হাসান খোকনের সাথে ফিরলেন প্রিন্স

সরকারের অন্যায় শাসন জনগণ মেনে নেবে না মঈন খানঁ

কালো ব্যাজ ধারণ্

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে পুনর্নির্বাচনের দাবিতে কঠোর আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। তারা বলেন, আর বেশিদিন মানববন্ধনের মতো কর্মসূচি পালন করা হবে না। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি ‘ভুয়া’ নির্বাচনের গণশুনানি করা হবে। এরপর গণতদন্ত করা হবে। সারা দেশে জনমত তৈরির মাধ্যমে কর্মজীবী-পেশাজীবীসহ জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে। বুধবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘কালো ব্যাজ ধারণ ও মানববন্ধন’ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তারা এসব কথা বলেন।

‘৩০ ডিসেম্বর ভোট ডাকাতির প্রতিবাদে’ এ কর্মসূচির আয়োজন করে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। নেতাকর্মীরা বুকে কালো ব্যাজ লাগিয়ে কর্মসূচিতে অংশ নেন। বিকাল ৩টায় এ কর্মসূচি শুরু হয়ে তা ৪টায় শেষ হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, ৩০ তারিখ ভোট হওয়ার কথা। কিন্তু ২৯ তারিখে ভোট ডাকাতি হয়েছে। পৃথিবীর ইতিহাসে সূচক হল একশ’ ভাগ। কিন্তু বাংলাদেশে ভোট ডাকাতি হয়েছে ১১৭ পয়েন্ট ৩ পারসেন্ট। এর মধ্যে ৯৭ দশমিক ৩ ভাগ হল ব্যালটে ডাকাতি, ৫ ভাগ যারা নির্বাচনের কাজে ব্যস্ত ছিল কিন্তু ভোট দিতে পারেননি, ৫ ভাগ হল যারা মারা গেছে ও বিদেশে আছেন। ১০ ভাগ হল গার্মেন্টস শ্রমিকসহ যারা ভোট দিতে পারেননি। মোট হল ১১৭ দশমিক ৩।

ইতিহাসে এ ধরনের জালিয়াতি ১০০-এর উপরে ১১৭। ঠকের ওপরে বাটপার, বাটপারের ওপরে বাটপারি- এটা বিশ্বের আর কোথাও হয়েছে বলে শুনিওনি। বই-পুস্তকে পড়িনি, দেখিওনি। তিনি বলেন, রাষ্ট্র, জাতি ও জনগণকে রক্ষা করতে হবে। অন্যায়কারীদের আসামির কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে বিচার করতে হবে। প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। পেশাজীবী, শ্রমজীবী ও কর্মজীবী মানুষদের নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ লাখ লাখ নেতাকর্মীদের মুক্ত করতে হবে।

তাদের মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। এজন্য মাঠের আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। শুধু ঘরের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলে হবে না। প্রতিবাদ ও কালো ব্যাজ ধারণ নয়, প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। প্রতিবাদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকব না। ৩০ ডিসেম্বর কী কী অপকর্ম করা হয়েছে, কী কী ডাকাতি করেছে- সব কিছু প্রকাশ করা হবে।

৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন না হয়ে নাটক হয়েছে উল্লেখ করে রব আরও বলেন, ৩০ তারিখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কিছু লোক, প্রশাসনের একটি অংশ মিলে যে ডাকাতি করেছে এখন তার উৎসব করা হচ্ছে। রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠানগুলো দলের অধীনে নেয়া হয়েছে। পুরস্কার দেয়া হল, ঘুষ দেয়া হয়েছে ইউনিয়ন পর্যায়ে। হাজার হাজার কোটি টাকা ঘুষ দেয়া হয়েছে। প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, প্রিসাইডিং, রিটার্নিং অফিসারদেরও ঘুষ দেয়া হয়েছে।

জেএসডি সভাপতি রব বলেন, ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন অসুস্থতার কারণে কালো ব্যাজ ধারণ কর্মসূচিতে উপস্থিত হতে পারেননি। জোটের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টু সিঙ্গাপুরে চিকিৎসার জন্য গেছেন। এছাড়া নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাও দেশের বাইরে। কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী পারিবারিক কারণে আসতে পারেননি। আমরা দৃঢ়তার সঙ্গে বলছি, ঐক্যফ্রন্ট ছিল, ঐক্যফ্রন্ট আছে, ঐক্যফ্রন্ট থাকবে।

আ স ম রব কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী ও নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের শিক্ষার্থীদের এ সরকারের অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে মাঠে নামারও আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর রাষ্ট্রের ভিত্তি, ক্ষমতার বিভাজন, সংবিধানের নির্দেশনা সব ধ্বংস করেছে। পৃথিবীর কোথাও এ ধরনের নিষ্ঠুর-নির্মম কাণ্ড ঘটেনি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেন, ইতিহাসের পেছনে ফিরে গেলে দেখবেন ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি ভোটবিহীন নির্বাচন হয়েছে। মিডিয়ার কল্যাণে আমরা দেখেছি সেদিন ভোট কেন্দ্রে ভোট দিয়েছে কুকুর ও বেড়াল। কোনো ভোটার ভোট দেয়নি। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন হয়নি, প্রহসন হয়েছে। দেশের জনগণ ও আন্তর্জাতিক মিডিয়া জানে দেশে কিভাবে প্রহসনের নির্বাচন হয়েছে। এবারের নির্বাচনে প্রমাণ হয়েছে দলীয় সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হতে পারে না। দৃঢ়তার সঙ্গে বলতে চাই, ক্ষমতা দখল করে দেশের রাজনৈতিক অচলাবস্থার অবসান হবে না। এ সরকারের অন্যায় শাসন বাংলাদেশের জনগণ মেনে নেবে না।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

মোহাম্মদ নাসিমের রোগ-মুক্তি কামনায় মুন্ডুমালা আ’লীগের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
শিবগঞ্জে পৌর মেয়র রাজিনের বিরুদ্ধে আ.লীগসহ সহযোগী সংগঠনের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন!
শিবগঞ্জে পৌর মেয়রের মদদে চলছে অবৈধ চাঁদা আদায় পরিবহন শ্রমিকরা নিরুপায়’ এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ!
কেসি ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে ৫ শতাধিক দুস্থদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন
বিশ্বের তিনজন সৎ ও পরিশ্রমী রাষ্ট্রনায়কের একজন শেখ হাসিনা’
চাঁদাবাজি মামলায় গ্রেফতারকৃত রাজশাহীর দুই’ কলেজের ছাত্রলীগ নেতা নাঈম ও আসাদ কারাগারে

আরও খবর

Design & Developed By It Host Seba